প্রযুক্তি না বুঝে ব্যাংকিংয়ের বিপদ

প্রতি দশকে বিশ্বের তাবৎ ব্যাংকিং ব্যবস্থার সঙ্গে সামঞ্জস্য ও সমন্বয়ে বাংলাদেশের প্রেক্ষাপটে প্রযুক্তি ব্যবহারে বিপ্লব সাধিত হয়েছে, যা সবার কাছেই দৃশ্যমান। নতুন সহস্রাব্দের দুই দশক পরে, অর্থাৎ তৃতীয় দশকের সূচনালগ্নে নতুন বিপ্লবের কড়া নাড়ার প্রাক্কালেই করোনা নামক অদৃশ্য প্রাণঘাতী জীবাণু অনেকটা বাধ্য হয়েই নতুন প্রযুক্তির প্রায়োগিক বাস্তবতার প্রতিফলন শুধু আর্থিক…

Continue reading

আমরা সকলে নতুন পৃথিবীতে ‘নবরূপে’ প্রবেশ করব

মুঠোফোনের হঠাৎ ‘টুং’ শব্দে সমবিৎ ফিরে পেলাম, মার্চে খবরের ক্ষুদে-বার্তায়; যেখানে বর্ণিত ‘সাধারণ ছুটি’ সংক্রান্ত সরকারি নির্দেশ-যাতে আমরা সকলে মিলে করোনার বিস্তার রোধ করতে পারি। সারা বিশ্বের সাথে তাল মিলিয়ে, ব্যাংকিং সেবা ব্যাহত না করে সীমিত আকারে পরিষেবা চালিয়ে যাওয়ার নির্দেশাবলি কেন্দ্রীয় ব্যাংক (বাংলাদেশ ব্যাংক) তথা নিজের ব্যাংক (কর্মস্থলের) সময়সূচিতে…

Continue reading

করোনাকালে ব্যাংকিং পরিষেবায় প্রযুক্তিনির্ভরতা বাড়ছে

করোনাকালীন সময়ে সর্বত্রই বিশ্বস্বাস্থ্য সংস্থা নির্দেশিত ও সরকার কর্তৃক বাস্তবায়িত নির্দিষ্ট তিন ফুট বা তদূর্ধ্ব দূরত্বে থেকে সেবা গ্রহণ-প্রদানের ধারণাটি শুধু রাস্তায়, দোকানে, ঔষধালয়ে, হাসপাতালে, গাড়িতে, ব্যাংকেই না, বরং মানুষের মনেও নিগূঢ়ভাবে দাগ কেটেছে। এই দাগকেই উপজীব্য করে, দূরত্বকেই মূল ভিত্তি ধরে, প্রাত্যহিক জীবনযাত্রায় আমরা ক্রমশঃ অভ্যস্থ হয়ে উঠার প্রচেষ্টায়…

Continue reading

তথ্য প্রযুক্তির নিরাপত্তা এবং সমসাময়িক ব্যাংকারের চিন্তার বলয়

ভূ-স্বামী সম্ভাব্য পাহারাদারকেঃ “তুমি ইংরেজী জান?” সম্ভাব্য পাহারাদারঃ “ক্যা, চোর কি বিলাত থন আইবো নিহি!” উপরোক্ত সাক্ষাতকারের সাথে হয়ত: অনেকেই পরিচিত নয়। কিন্তু বর্তমান সময়ে, শুধু বাসা বাড়িতেই নয়; অনেক প্রতিষ্ঠানে বিশেষ করে আর্থিক বা সমমানের প্রতিষ্ঠানগুলোতে প্রয়োজনীয় তো বটেই, আবশ্যকও। এখানে আলোচিত পাহারাদারকে রূপক অর্থে দেখানো হয়েছে। যিনি কি…

Continue reading